মার্কিন নীতি ভেনিজুয়েলায় সামরিক হস্তক্ষেপের অজুহাত: রাশিয়া

  • রুশ পাররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ
    রুশ পাররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ

দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ভেনিজুয়েলার সংকটাপন্ন পরিস্থিতিতে মার্কিন নীতির কঠোর সমালোচনা করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। মার্কিন প্রশাসন ভেনিজুয়েলার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের মাধ্যমে দেশটির সরকার পরিবর্তনের নীতি গ্রহণ করেছে। এজন্য ওয়াশিংটন ভেনিজুয়েলার বিরোধীনেতা হুয়ান গুয়াইদোকে সমর্থন দিচ্ছে।

গতকাল (বৃহস্পতিবার) মেক্সিকো সফরের সময় ল্যাভরভ সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা কোনো ধরনের প্রস্তাব আনি নি, আমরা আমাদের মিত্রদের প্রতি সম্মান দেখাই। চাপ সৃষ্টি করে আমরা কোনো রকমের সরকার পরিবর্তনের নীতির বিরুদ্ধে।”

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “লিমা গ্রুপের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধভাবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন কতগুলো পদক্ষেপ নেয়ার চেষ্টা করছে কিন্তু আমরা মনে করি এসব ব্যবস্থা কার্যকরী হবে না। আমরা বরং কোনো রকমের শর্ত ছাড়াই জাতীয় সংলাপের কথা বলছি। এ বিষয়টি আমরা মেক্সিকোর সঙ্গে শেয়ার করেছি। আমাদের পশ্চিমা বন্ধুরা মনে করেন, সংলাপ জরুরি কিন্তু তারা সরকার পরিবর্তনের বিষয়টিকে সামনে রেখে একথা বলেন। এমন অবস্থাকে আমি মধ্যস্থতা মনে করি না বরং বিদেশি মডেল চাপিয়ে দেয়া মনে করি। আমরা ওয়াশিংটনকে বলতে শুনেছি যে, ভেনিজুয়েলায় প্রেসিডেন্ট পরিবর্তনের কোনো বিকল্প নেই।”

ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো

এ সময় সাংবাদিকদের কাছে ওয়াশিংটনের হুমকি তুলে ধরে ল্যাভরভ বলেন, “তারা বারবার বলেছেন ভেনিজুয়েলা সরকারের বিরুদ্ধে সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়ে ভাবছেন। এসব কথা বলে মূলত তারা ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর বিরুদ্ধে সহিংস আন্দোলনের উসকানি দিয়েছেন। আমরা একে দেশটিতে সামরিক হস্তক্ষেপের অজুহাত হিসেবে দেখছি।”#

পার্সটুডে