চীনে করোনাভাইরাস: মৃতের সংখ্যা বেড়েছে, সুস্থতাও বাড়ছে

  • করোনাভাইরাসে মৃত্যু বেড়েছে তবে সুস্থতাও বাড়ছে
    করোনাভাইরাসে মৃত্যু বেড়েছে তবে সুস্থতাও বাড়ছে

চীনে নতুন করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত ৬৩৭ জন মারা গেছে। এছাড়া, ৩১ হাজার ২১১ জন এ ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছে। চীনের বাইরে ২২০ জন আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ পর্যন্ত চীনের বাইরে ফিলিপাইনে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

করোনভাইরাস নিয়ে যখন বিশ্বব্যাপী প্রচণ্ড আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে তখন এ ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়া রোগীদের অনেকে সুস্থ হয়েও উঠছেন। আজ (শুক্রবার) চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ১,৫৪০ ব্যক্তি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। করোনভাইরাস নিয়ে চীন সরকার এরইমধ্যে ৩১টি প্রদেশে এক নম্বর জরুরি সতর্কতা জারি করেছে।

এদিকে, যৌক্তিক ও বিজ্ঞানভিত্তিক আচরণের জন্য ব্রিটিশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন চীনের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছিন গ্যাং। ব্রিটিশ নাগরিকদের চীন থেকে দেশে ফেরার জন্য বোরিস জনসনের সরকার নির্দেশনা দেয়ার পর এ আহ্বান জানালেন চীনা উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, বেইজিং আশা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা মেনে চলবে ব্রিটিশ সরকার এবং জনগণকে চীন সফর থেকে বিরত রাখার চেষ্টা করবে না। পাশাপাশি এ বিষয়ে অতি মাত্রায় প্রতিক্রিয়াও দেখাবে না লন্ডন।

করোনাভাইরাসের সন্দেহে পশ্চিমা দেশগুলোতে চীনা ও এশিয়ার নাগরিকদের সঙ্গে বর্ণবাদী আচরণ করা হচ্ছে 

অন্যদিকে, আমেরিকার জন হপকিন্সের ক্রিটিক্যাল ইভেন্ট প্রিপিয়ার্ডনেস অ্যান্ড রেসপন্স বিভাগের পরিচালক ও বিশেষজ্ঞ লরেন সাওয়ার বলেছেন, করোনাভাইরাস নিয়ে ভীতি ছড়ানোর মধ্যে কোনো কল্যাণ নেই বরং সঠিক পদক্ষেপ হবে ভয়কে জয় করেই এগিয়ে যাওয়া।

পশ্চিমা দেশগুলোতে এরইমধ্যে চীন ও এশিয়ার জনগণের সঙ্গে এক রকমের বর্ণবাদী আচরণ করা হচ্ছে। সবাইকে বাহুল্যভাবে সন্দেহের চোখে দেখা হচ্ছে।#

পার্সটুডে